১৭:৪৭:০৩

জানুয়ারীতে খাদ্য মূল্য ছিলো স্থিতিশীল : এফ এ ও

শুনুন /

জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা, এফ এ ও'র খাদ্য মূল্যের সূচক গত তিন মাসে নিম্নগামী থাকলেও ২০১৩ সালের জানুয়ারী মাসে অপরিবর্তিত ছিলো।

এফ এ ও বলছে জ্বালানী তেল এবং স্নেহজাতীয় পণ্যের মূল্যবৃদ্ধির কারণে খাদ্যশস্য এবং চিনির মূল্যহ্রাস সূচককে নিম্নগামী হতে দেয় নি। এছাড়া, দুগ্ধজাত পণ্য এবং মাংসের মূল্য এসময় স্থিতিশীল ছিলো।

এফএও'র খাদ্যশস্য সরবরাহ ও চাহিদা বিষয়ক মাসিক প্রকাশনায় বলা হয় যে ২০১২ সালে বিশ্বে খাদ্যশস্যের উৎপাদন ২০১১'র রেকর্ড উৎপাদনের তুলনায় দুই শতাংশ কম হয়েছে ।

সংস্থা বলছে যে ২০১৩ সালে ইউরোপীয় ইউনিয়ন এলাকায় আবহাওয়া এপর্য্যন্ত অনুকূল থাকায় গমের উৎপাদন চার থেকে পাঁচ শতাংশ বেশী হতে পারে বলে আভাষ পাওয়া যাচ্ছে এবং সেকারণে খাদ্যশস্যের বৈশ্বিক উৎপাদন বাড়বে বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

তবে, যুক্তরাষ্ট্রে পরিস্থিতি ততোটা অনুকূল নয় উল্লেখ করে এফ এ ও বলছে যে শীতকালে গমচাষের পরিমাণ এক শতাংশ বেশী হওয়া সত্ত্বেও দেশটির দক্ষিণাঞ্চলে মারাত্মক খরা পরিস্থিতি অব্যাহত থাকায় সামগ্রিক সম্ভাবনায় তার প্রভাব পড়তে পারে।

উন্নয়নশীল দেশগুলোতে ক্যান্সার চিকিৎসার অভাবে উদ্বিগ্ন আই এ ই এ

আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা, আই এ ই এ'র প্রধান বলেছেন যে উন্নয়নশীল দেশগুলোতে লাখ লাখ ক্যান্সার রোগী রোগনির্ণায়ক পরীক্ষার সুবিধা থেকে বঞ্চিত থাকার কারণে এক গভীর মানবিক দুর্যোগ তৈরি হচ্ছে।

চৌঠা ফেব্রুয়ারী বিশ্ব ক্যান্সার দিবস উপলক্ষ্যে আই এ ই এ'র প্রধান ডঃ ইউকিয়া আমানো বলেন যে তাঁর প্রতিষ্ঠান রেডিওথেরাপি সেবা সবার কাছে পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে ক্যান্সারবিরোধী লড়াইয়ে অন্যান্য শরীকদের সাথে কাজ করছে।

ক্যান্সারগ্রস্ত কোষ মেরে ফেলার জন্য তেজস্ত্রিয় এক থেরাপি প্রয়োগের চিকিৎসা চালু রয়েছে। তবে, ডঃআমানো বলেন যে আই এ ই এ'র হিসাবমতে উন্নয়নশীল দেশগুলোতে পাঁচ হাজারেরও বেশী রেডিওথেরাপি মেশিনের ঘাটতি রয়েছে।

ডঃ আমানো বলেন যে আই এ ই এ'র মহাপরিচালক হিসাবে আমি অনেক দেশ সফর করেছি। ডঃ আমানো বলেন যে যখনই আমি এসব দেশে যাই তখনই আমি সেখানকার ক্যান্সার হাসপাতালগুলো পরিদর্শনের চেষ্টা করি এবং অকে দেশেই আমি দেখেছি যে সেখানে কোন যন্ত্রপাতিই নেই অথবা মাত্র একটি সরঞ্জাম রয়েছে যার ওপর হাজার হাজার রোগী নির্ভরশীল।

তিনি বলেন যে ক্যান্সার দ্রুত চিহ্নিত করা এবং আধুনিক চিকিৎসার অর্থ হচ্ছে লাখ লাখ ক্যান্সার রোগী রোগ ধরা পড়ার পরও যুগের পর যুগ ধরে বেঁচে থাকতে সক্ষম হবে।

প্রতি দু'টির মধ্যে একটি দেশ ক্যান্সার মোকাবেলায় প্রস্তুত নয়: ডাব্লু এইচ ও

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা – ডাব্লু এইচ ও'র এক জরীপে বলা হয়েছে যে প্রতি দুটি দেশের মধ্যে একটি ক্যান্সার রোধ এবং তা মোকাবেলার ব্যবস্থা করার ক্ষেত্রে এখনও প্রস্তুত নয়।

এই জরীপে বলা হয় যে বিশ্বে অর্ধেকেরও বেশী দেশ ক্যান্সার মোকাবেলা এবং তার চিকিৎসা এবং ক্যান্সার রোগীদের ধারাবাহিক পরিচর্য্যার ব্যবস্থা করতে হিমশিম খাচ্ছে।

বিশ্বের একশো পঁচাশিটি দেশে পরিচালিত এই জরীপে ক্যান্সার নিয়ন্ত্রণের পরিকল্পনা এবং সেবা ব্যবস্থার মধ্যে বড়ধরণের ব্যবধান দেখা গেছে।

বৈশ্বিক বেকারত্ব মোকাবেলায় সুদৃঢ় পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান

নিউইয়র্কে বুধবার শুরু হওয়া সামাজিক উন্নয়ন বিষয়ক কমিশনের প্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে বৈশ্বিক বেকারত্ব মোকাবেলায় সুদৃঢ় পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানানো হয়েছে।

জাতিসংঘের ডিপার্টমেন্ট অব ইকোনমিক এন্ড সোশ্যাল অ্যাফেয়ার্সের প্রধান, উ হংবো বলেন যে বিশ্বে প্রায় কুড়ি কোটি লোক এখন বেকার এবং এদের চল্লিশ শতাংশই তরূণ।অন্যদিকে, বেকারত্বের সংখ্যা এখনও বেড়েই চলেছে।

উ হংবো বলেন যে এগুলো শুধু পরিসংখ্যান নয় – এসব সংখ্যার পিছনে রয়েছে ক্ষতিগ্রস্ত জীবন, পেশাচ্যূতি এবং সুযোগ হারানোর ঘটনা।

উ হংবো বলেন যে আমি তাই কমিশনের প্রতি আহ্বান জানাতে চাই যে এবিষয়ে আন্তরিক আলোচনা করে বেকারত্বের অভিশাপ মোকাবেলায় আমরা নির্দিষ্ট পদক্ষেপ এবং উদ্যোগ গ্রহণ করি।

সামাজিক উন্নয়ন বিষয়ক এই কমিশন প্রতিবছর জাতিসংঘ সদর দপ্তরে অধিবেশনে মিলিত হয়ে বিভিন্ন সামাজিক বিষয় আলোচনা করে থাকে। চলতি বছরের অধিবেশন চলবে পনেরোই ফেব্রুয়ারী পর্য্যন্ত।

এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশগুলোতে দূষণ মোকাবেলার উদ্যোগ

পরিবেশ দূষণ করে এমন সব ক্ষণস্থায়ী পদার্থ (শর্টলিভড ক্লাইমেট পলুটেন্ট বা এস এল সি পি)'র প্রভাব কমানোর উপায় নির্ধারণের লক্ষ্যে এশিয়া ও প্রশান্ত-মহাসাগরীয় এলাকার সরকারী প্রতিনিধিরা ব্যাংককে এক আঞ্চলিক বৈঠকে মিলিত হয়েছেন।

জাতিসংঘ পরিবেশ কর্মসূচি – ইউ এন ই পি জানায় যে এবিষয়ে এটিই ঐ অঞ্চলের প্রথম আঞ্চলিক সভা।

সংস্থা বলছে যে ধূঁয়ার কালির গুঁড়া, মিথেন এবং হাইড্রোফ্লুরোকার্বন এর মতো এস এল সি পিগুলো বৈশ্বিক উষ্ণায়নের কিছুটা অংশের জন্য দায়ী এবং এগুলো মানবস্বাস্থ্য, কৃষি এবং জীববৈচিত্রের জন্য বিপজ্জনক।

ইউ এন ই পি'র ২০১১ সালের এক জরীপ অনুযায়ী ২০৩০ সালের মধ্যে এস এল সি পি'র পরিমাণ কমানোর জোরালো পদক্ষেপ গ্রহণের মাধ্যমে বিশ্বে অন্তত কুড়ি লাখ অপরিণত মৃত্যু ঠেকানো এবং তিন কোটি টন শস্যহানি বন্ধ করা সম্ভব।

সংস্থা বলছে যে এসব পদক্ষেপের মাধ্যমে হিমালয়ের হিমবাহ গলে যাওয়া এবং দক্ষিণ এশিয়ায় বর্ষা মৌসুমের ধারাবাহিকতায় বিঘ্ন ঘটার হার কমানো সম্ভব।

মধ্যপ্রাচ্য শান্তিপ্রক্রিয়ায় অচলাবন্থা অগ্রহণযোগ্য : বান

ফিলিস্তিনী অধিকার বিষয়ক কমিটির ২০১৩ সালের অধিবেশন উদ্বোধনকালে জাতিসংঘ মহাসচিব, বান কি মুন বলেছেন যে বিদ্যমান অচলাবস্থা অগ্রহণযোগ্য এবং এটি টিকিয়ে রাখা সম্ভব নয়।

তিনি বলেন যে নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাবগুলোর সাথে সঙ্গতি রেখে দুই রাষ্ট্রভিত্তিক সমাধানের লক্ষ্যে একটি সমঝোতায় উপনীত হওয়ার জন্য ইজরায়েল এবং ফিলিস্তিনী উভয়পক্ষকে তাদের অঙ্গীকার রক্ষা করতে হবে। সীমানা, নিরাপত্তা, জেরুজালেম, শরণার্থী, বসতি এবং পানি নিয়ে এসব সমঝোতা প্রয়োজন বলে তিনি উল্লেখ করেন।

মহাসচিব বান বলেন যে কোন সুনির্দিষ্ট ফলাফল ছাড়া আরো একটি বছর পার করা গ্রহণযোগ্য হতে পারে না।

মি বান বলেন যে প্রত্যেকটি রাষ্ট্রকে তার নাগরিকদের সমান নাগরিক অধিকার নিশ্চিত করতে হবে এবং তাদের মানবাধিকার ও মানবিক মর্য্যাদার প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে হবে।

মি বান বলেন যে আলোচনার মাধ্যমে জেরুজালেমকে দুটি রাষ্ট্রেরই ভবিষ্যত রাজধানী হিসাবে আবির্ভূত হতে হবে। পথনকশায় যে নির্দেশনা রয়েছে তার আলোকে আলোচনার ভিত্তিতে শরণার্থী সমস্যার একটি ন্যয়সঙ্গত ও বাস্তবভিত্তিক সমাধানে সম্মত হতে হবে।

মি বান বলেন যে এটাই হচ্ছে দুই রাষ্ট্রভিত্তিক সমাধানে আমাদের ভবিষ্যত ভাবনার মূলকথা। মি বান বলেন যে আমাদের আরব শরীকরাসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এসব লক্ষ্য অর্জনের জন্য যৌথভাবে আবারও এক্ষেত্রে যুক্ত হতে প্রস্তুত। কিন্তু, এগুলো সবই অর্থহীন হয়ে পড়বে যদি না পক্ষগুলো শান্তিপ্রক্রিয়াকে এগিয়ে নিতে নিজেরাই আন্তরিকভাবে অঙ্গীকারাবদ্ধ না হন।

মি বান বলেন যে ইজরায়েলী বসতিস্থাপন কার্য্যক্রম নাটকীয়ভাবে বেড়ে যাওয়ায় তিনি হতাশ হয়েছেন। তিনি বলেন যে দুই রাষ্ট্রভিত্তিক সমাধানের পথে বসতিস্থাপন কার্য্যক্রম একটা বড় বাধা এবং তা অবিলম্বে বন্ধ হওয়া দরকার।

Loading the player ...

সংযোগ বজায় রাখুন