১৩:৩৯:৫০

মানবাধিকার পরিষদের প্রতি হুমকি গ্রহণযোগ্য নয়, বলছেন যেইদ

শুনুন /

জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদকে খাটো করার চেষ্টা চালানোর জন্য তিনটি সদস্য রাষ্ট্রের কড়া সমালোচনা করেছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার যেইদ রাদ আল হুসেইন।

গত ২১ নভেম্বর, মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে যেইদ এসব দেশের সমালোচনা করেন। পরিষদের অনুরোধে বুরুন্ডির পরিস্থিতি সম্পর্কে জাতিসংঘের একটি রির্পোট তৈরির জন্য ঐ রিপোর্টের রচয়িতার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার হুমকিকে তিনি অগ্রহণযোগ্য বলে অভিহিত করেছেন।

একইসঙ্গে তিনি ফিলিপিন্সের প্রেসিডেন্ট রড্রিগো দুতার্তের নিন্দা করেছেন। প্রেসিডেন্ট দুতার্তে জাতিসংঘের স্পেশাল র‌্যাপোর্টিয়ার অ্যাগ্নেস কোলামার্ডকে লাঞ্চিত করার হুমকি দিয়েছেন।

জাতিসংঘের মানবাধিকার প্রধান আরেকজন স্পেশাল র‌্যাপোর্টিয়ার শিলা কিথারুথের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের জন্য জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদে ইরিত্রিয়ার রাষ্ট্রদূতকে দায়ী করে তাঁরও সমালোচনা করেন।

হাই কমিশনারের মুখপাত্র হলেন রুর্পাট কোলভিল।

মি কোলভিল বলছিলেন যে আমি যেমনটি বলেছি যে বুরুন্ডির ক্ষেত্রে হাই কমিশনার দেশটির সরকারের কাছে চিঠি লিখে স্পষ্ট করে দিয়েছেন যে তিনি তদন্ত কমিশনের রিপোর্টের সমালোচনাকে একেবারেই অগ্রহণযোগ্য মনে করেন। এধরণের কথা যখন একজন প্রেসিডেন্টের মুখ থেকে উচ্চারিত হয় তখন তার পরিণতিতে সত্যিকার ক্ষতি সাধিত হতে পারে।

মি কোলভিল জোর দিয়ে বলেন যে সরকারগুলোর উচিত মানবাধিকার পরিষদ ও তার ম্যান্ডেটপ্রাপ্তের সঙ্গে সহযোগিতা করা। এগুলোর কোনটিই যথেষ্ট কারণ ছাড়া প্রতিষ্ঠা করা হয় নি।

সাতচল্লিশ সদস্যের মানবাধিকার পরিষদ বছরে তিনবার জেনেভায় অধিবেশনে মিলিত হযে থাকে।

এই পরিষদের আগামী অধিবেশন আগামী বছরের র্মাচ মাসে। তবে, আগামী বৃহস্পতিবার পরিষদ মিয়ানমারের শরণার্থী সংকটের বিষয়ে একটি বিশেষ অধিবেশনে মিলিত হবে।

Loading the player ...

সংযোগ বজায় রাখুন