১৭:৫৭:৪৪

নিরাপত্তা পরিষদের অক্ষমতা লজ্জাজনক: ফরাসী দূত

শুনুন /

জাতিসংঘে নিযুক্ত ফরাসী রাষ্ট্রদূত জেরার্ড অঁরা বলেছেন যে সিরিয়ায় সরকারী এবং বিরোধীবাহিনীগুলোর মধ্যেকার সংঘাত তীব্রতর হলেও নিরাপত্তা পরিষদ যে কোন ভূমিকা রাখতে পারছে না তা একটা লজ্জার বিষয়।নিরাপত্তা পরিষদের পালাক্রমিক সভাপতিত্বের পালায় অগাষ্ট মাসের জন্য দায়িত্ব গ্রহণ করেছে ফ্রান্স। ফ্রান্স নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচটি স্থায়ী সদস্যদেশের একটি।

ফরাসী রাষ্ট্রদূত বলেন যে সিরিয়ার বিষয়ে নিরাপত্তা পরিষদে সিদ্ধান্তগ্রহণে বাধাসৃষ্টিই এই সমস্যার কারণ ।

রাস্ট্রদূত অঁরা বলেন যে আমরা চীন এবং রাশিয়ার তিনটি ভেটোর মখে পড়েছি, অর্থাৎ আমরা আর কোন পদক্ষেপ নিতে অক্ষম।অবশ্যই এটা সিরীয়দের জন্য দূর্ভাগ্য। এটা নিরাপত্তা পরিষদের বিশ্বাসযোগ্যতার জন্যও একটা পরিতাপের বিষয়।

রাষ্ট্রদূত অঁরা বলেন যে তাঁর ধারণা সিরীয়দের ভোগান্তি যদি বেড়ে নতুন মাত্রা পায় তাহলে নিরাপত্তা পরিষদের ফরাসী নেতৃত্ব কিছু করার জন্য নতুন করার জন্য উদ্যোগ নেবে।তিনি বলেন যে খোলাসা করে বললে এটা একটা লজ্জার বিষয়।

সিরিয়ার আলেপ্পো শহরের জন্য খাদ্য সাহায্য প্রেরণ

সিরীয় শহর আলেপ্পোতে দ্বিতীয় সপ্তাহের মত তীব্র লড়াই অব্যাহত থাকায় সেখান থেকে পালিয়ে যেতে বাধ্য হওয়া দুই লক্ষ উদ্বাস্তুর জন্য বিশ্ব খাদ্য সংস্থা , ডাব্লু এফ পি খাদ্য সাহায্য পাঠিয়েছে।

সংস্থা বলছে আগামী কয়েকদিনে আঠাশ হাজার লোকের মধ্যে এসব খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হবে।
ডাব্লু এফ পি এবং তার ষহযোগী সিরীয় আরব রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি আলেপ্পোতে সহিংসতা শুরু হওয়ার পর থেকে প্রায় চল্লিশ হাজার লোকের মধ্যে খাদ্য বিতরণ করেছে।

সংস্থা জানায় জুলাই মাসে সিরিয়াতে তারা পাঁচ লাখ লোককে খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন।

বুকের দুধ বছরে দশ লাখ শিশুর জীবন বাঁচাতে পারে : ইউনিসেফ

জাতিসংঘ শিশু তহবিল , ইউনিসেফ শিশুদের বুকের দুধ খাওয়ানোর প্রসার ঘটানোর লক্ষ্যে নীতিমালা প্রণয়নের জন্য সরকারগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

পহেলা থেকে সাতই অগাষ্ট মায়ের দুধ খাওয়ানোর বিষয়ে আন্তর্জাতিক সচেতনতা সপ্তাহ পালনের কুড়ি বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে ইউনিসেফ বলেছে যে উন্নয়নশীল দেশগুলোতে মায়ের দুধ বছরে দশ লাখ শিশুর মৃত্যু ঠেকাতে পারে।

ইউনিসেফের হিসাব অনুযায়ী উন্নয়নশীল দেশগুলোতে ১৯৯৫ সাল থেকে ২০১০ পর্যন্ত শিশুদের বুকের দুধ খাওয়ানোর হার ৩২ শতাংশ থেকে ৩৯ শতাংশে এসে স্থবির হয়ে গেছে।

ইউনিসেফ বলছে শিশুদের মধ্যে ডায়রিয়া এবং নিউমোনিয়ার মতো প্রাণঘাতি রোগগুলোর সংক্রমণ ঠেকাতে বুকের দুধ যে কার্যকর ভূমিকা রাখে তার অকাট্য প্রমাণ রয়েছে।

টেকসই উন্নয়ন বিষয়ে জতিসংঘ প্যানেল

Secretary-General Ban Ki-moon

জাতিসংঘ মহাসচিব ব্যান কি মুন সহস্রাব্দের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের উদ্দেশ্যে ২০১৫ সালের পরও মানুষের জীবনযাত্রার মানোন্নয়নের উদ্যোগসমূহের সমন্বয়ের জন্য একটি উচ্চপর্যায়ের প্যানেল গঠন করেছেন।
সম্প্রতি ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত রিও প্লাস টোয়েন্টি এবং মেক্সিকোয় অনুষ্ঠিত বৃহৎ অর্থনীতিগুলোর জোট জি টোয়েন্টির শীর্ষবৈঠকগুলোর বিষয়ে মঙ্গলবার তিনি জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদকে অবহিত করেন।

তিনি জানান যে জি টোয়েন্টিকে তিনি রিও প্লাস টোয়েন্টির কার্যক্রমের সাথে সমন্বয়ের আহ্বান জানিয়েছেন।

ইন্দোনেশিয়া এবং লাইবেরিয়ার প্রেসিডেন্টদ্বয় এবং বৃটিশ প্রধানমন্ত্রীর যৌথ নেতৃত্বে টেকসই উন্নয়ন বিষয়ে উচ্চপর্যায়ের যে প্যানেল গঠনের কথা তিনি মে মাসে ঘোষণা করেছিলেন সেকথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে তিনি বলেন যে তিনি আজ ঐ প্যানেলের সব সদস্যদের নাম ঘোষণা করতে পেরে আনন্দিত যাঁদের ছাব্বিশজন বিশ্বের সব অঞ্চল এবং ব্যাপক ও পরিপূরক অভিজ্ঞতার প্রতিনিধিত্ব করেন।

মি ব্যান বলেন যে সেপ্টেম্বরের শেষদিকে সাধারণ পরিষদের বিতর্কের সময় এই প্যানেল আলাদাভাবে প্রথমবারের মতো বৈঠকে সববে এবং তাঁদের সুপারিশসম্বলিত রিপোর্ট আগামী বছর তিনি সাধারণ পরিষদে তুলে ধরবেন।

তিনি বলেন যে রিও প্লাস টোয়েন্টিতে টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রাগুলো নির্ধারণের জন্য যে আন্ত:সরকার কর্মগোষ্ঠী গঠিত হয়েছে তাদের সাথে ঘনিষ্ঠ সমন্বয়ের মাধ্যমেই এই প্যানেল তার কাজ করবে।

লন্ডন অলিম্পিকের নিরাপত্তা বিষয়ে ডাব্লু এইচ ও'র আশাবাদ

অলিম্পিকের মতো বড়ধরণের অনুষ্ঠান যেখানে ব্যাপক গণসমাগম ঘটে সেখানে জনস্বাস্থ্য হহুমকির মুখে পড়তে পারে। আর, সেকারণেই ক্রীড়াবিদ এবং সাধারণ জনগোষ্ঠীর জন্য গেমসকে নিরাপদ করতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা , ডাব্লু এইচ ও আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির সাথে একযোগে কাজ করছে।

লন্ডন ২০১২র জন্য প্রায় বারো হাজার অ্যাথলেট এবং একুশ হাজার সাংবাদিক সেখানে জড়ো হয়েছেন।
ডাব্লু এইচ ও'র ড, মরিৎসিও বারবেশি বলেন যে শহরে বেড়ে যাওয়ার লোকজনের উপস্থিতি বেড়ে যাওয়ার মানে হচ্ছে সংক্রমণযোগ্য রোগ, ভ্রমণজনিত অসুস্থতা এবং এমনকি খাদ্য ও পানির মাধ্যমে জৈব সন্ত্রাস সৃষ্টির আশংকা স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে এসময়ে অনেক বৃদ্ধি পায়।

ড. বারবেশি বলেন যে আপনি শান্তিকালীন সময়ে সাধারণ রোগের প্রকোপ মোকাবেলায় যেভাবে কাজ করে থাকেন সেখানে আরো বারো হাজার লোকের চলাফেরার কারণে জনস্বাস্থ্য ব্যবস্থা একটা চাপের মধ্যে পড়বেই।

Loading the player ...

সংযোগ বজায় রাখুন