১৪:১৩:০১

সরকারী নথিতে তেইশ কোটি শিশুর অস্তিত্ত্ব নেই: ইউনিসেফ

শুনুন /

জাতিসংঘ শিশু তহবিল , ইউনিসেফ বলছে যে বেসামরিক কতৃপক্ষের নথিতে তালিকাভুক্ত না হওয়ায় সরকারী হিসাবে বিশ্বে প্রায় তেইশ কোটি শিশুর কোন হিসাব নেই। বুধবার ইউনিসেফের প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে একথা জানানো হয়।

ইউনিসেফের ডাটা এন্ড অ্যানালিটিক্স বিভাগের পরিসংখ্যান বিশেষজ্ঞ, ক্লডিয়া কাপ্পা বলেন যে জন্ম নিবন্ধনের সার্টিফিকেট ছাড়া শিশুরা শিক্ষা এবং স্বাস্থ্য সেবার সুযোগ গ্রহণ করতে পারে না।

ক্লডিয়া কাপ্পা বলেন যে জন্ম নিবন্ধন এবং নিবন্ধনের সার্টিফিকেট থাকার গুরুত্বটা বুঝতে পারাও গুরুত্বর্পূণ, কেননা এর মানে হচ্ছে ওই শিশুটি তার বয়সের প্রমাণ দিতে সক্ষম। তারা যদি সেটা প্রমাণ করতে না পারে তাহলে তারা এটাও প্রমাণ করতে পারবে না যে তারা শিশু।

ক্লডিয়া কাপ্পা বলেন যে তাদেরকে জোর করে বিয়ে দেওয়া যায় অথবা শ্রমে নিয়োগ করা যায় কিম্বা সেনাবাহিনীতেও  ভর্তি করানো যায় এবং প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া সত্ত্বেও তাদের সাথে প্রাপ্তবয়স্কের আচরণ করা যায়।

ক্লডিয়া কাপ্পা বলেন যে এমনকি একধরণের জরুরি অবস্থার পটভূমিতেও একটি পরিবার অনিবন্ধিত কোন শিশুর অস্তিত্ত্ব দাবি করতে পারে না।শিশুরা পাচার হতে পারে এবং তারপরও একটি পরিবার এটা প্রমাণ করতে পারবে না যে ওইসব পাচার হওয়া শিশু তাঁদের সন্তান – তাদের অস্তিত্ত্ব আছে।

এভরি চাইল্ডস র্বাথ রাইট: ইনইকুয়ালিটিজ এন্ড ট্রেন্ডস ইন র্বাথ রেজিষ্ট্রেশন র্শীষক এই রির্পোটটি একশো একষট্টিটি দেশ থেকে সংগৃহীত পরিসংখ্যানের ওপর ভিত্তি করে রচিত।

ইউনিসেফ এর এই প্রতিবেদন অনুযায়ী  যে দশটি দেশে জন্ম নিবন্ধনের হার সবচেয়ে কম তারা হোল সোমালিয়া, লাইবেরিয়া, ইথিওপিয়া, জাম্বিয়া, চ্যাড, তাঞ্জানিয়া, ইয়েমেন, গিনি বিসাউ, পাকিস্তান এবং গণতান্ত্রিক কঙ্গো প্রজাতন্ত্র ( ডিআরসি)।

Loading the player ...

সংযোগ বজায় রাখুন