১৭:০৯:১৪

জাতিসংঘের মূল্যবোধকে এগিয়ে নেওয়ায় ম্যান্ডেলা ছিলেন অগ্রগণ্য : বান

শুনুন /

দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট নেলসন ম্যান্ডেলার মৃত্যুতে জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন বৃহস্পতিবার তাঁর গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। মি ম্যান্ডেলা পঁচানব্বুই বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন।

ওইদিন সন্ধ্যায় নিউইয়র্কে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলার সময় মহাসচিব বলেন যে মানবতা এবং ন্যায়বিচারের প্রতি বিশ্বাস এবং তা প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন ও তার জন্য একযোগে কাজ করলে প্রত্যেক মানুষের পক্ষে কি অর্জন করা সম্ভব তা মি ম্যান্ডেলা দেখিয়ে দিয়েছেন।

মি বান বলেন যে নেলসন ম্যান্ডেলার মৃত্যুতে আমি খুবই মর্মাহত। ন্যায়বিচারের জন্য নেলসন ম্যান্ডেলা ছিলেন একজন বিশাল ব্যাক্তিত্ব এবং অকৃত্রিম মানবিক উদ্দীপনার উৎস।

মি বান বলেন যে স্বাধীনতা, সাম্য এবং মানবিক মর্য্যাদা প্রতিষ্ঠায় তাঁর নিঃর্স্বাথ লড়াই বিশ্বব্যাপী বহু মানুষের ওপর প্রভাব ফেলেছে। তিনি ব্যাক্তিগতভাবে আমাদের জীবনকে গভীরভাবে ছুঁয়ে গেছেন।

মি বান বলেন যে একইসাথে, জাতিসংঘের মূল্যবোধ এবং আকাঙ্খাকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য আমাদের সময়ে আর কেউ তাঁর চেয়ে বেশি অবদান রাখে নি।

নেলসন ম্যান্ডেলা তাঁর নিজের দেশ – দক্ষিণ আফ্রিকায় বর্ণের ভিত্তিতে জনগোষ্ঠীকে বিভাজনের ব্যবস্থা বর্ণবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের কারণে প্রায় তিন দশক কারাগারে বন্দী ছিলেন।

১৯৯০ সালে তাঁকে মুক্তি দেওয়া হয় এবং চারবছরের মধ্যে তিনি দেশটির প্রথম গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট হিসাবে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে ভাষণ দেন।

এক মেয়াদে প্রেসিডেন্ট হিসাব দায়িত্বপালনের পর ১৯৯৯ সালে তিনি ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়ান, তবে, বিশ্বব্যাপী শান্তি ও মানবাধিকারের জন্য কাজ করা অব্যাহত রাখেন।

মানবতার প্রতি তাঁর কয়েক যুগের সেবার স্বীকৃতি হিসাবে  ২০১০ সাল থেকে প্রতি বছর আঠারোই জুলাই তাঁর জন্মদিনে  নেলসন ম্যান্ডেলা আন্তর্জাতিক দিবস পালন করা হয়ে থাকে।

Loading the player ...

সংযোগ বজায় রাখুন