১৬:১৫:২৫

কিশোর-কিশোরীদের মধ্যে এইচ আই ভি'র সংক্রমণ উদ্বেগজনক

শুনুন /

শুক্রবার জাতিসংঘ শিশু তহবিল ইউনিসেফের নতুন এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে ২০০৫ সাল থেকে ২০১২ সালের মধ্যে নিম্ন এবং মধ্য আয়ের দেশগুলোতে প্রসূতি থেকে নবজাতকের দেহে এইচ আই ভি'র সংক্রমণ ঠেকানোয় বড়ধরণের অগ্রগতি অর্জিত হয়েছে এবং প্রায় সাড়ে আট লাখ শিশুর ক্ষেত্রে সংক্রমণ এড়ানো গেছে।

তবে, ২০১৩'র পর্যালোচনা প্রতিবেদনে কিশোরদের মধ্যে এইডস সংক্রমণের বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়।

এতে বলা হয় যে ২০০৫ থেকে ২০১২ সালের মধ্যে কিশোর-কিশোরীদের মধ্যে এইডসে মৃত্যুর সংখ্যা প্রায় পঞ্চাশ শতাংশ বেড়ে একাত্তর হাজার থেকে এক লাখ দশ হাজারে পৌঁছেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয় যে ২০১২ সালে বিশ্বে এইচ আই ভি আক্রান্ত কিশোর-কিশোরীর সংখ্যা প্রায় একুশ লাখ।

ইজরায়েল এবং ফিলিস্তিনের জন্য দুই রাষ্ট্রভিত্তিক সমাধান সমর্থনের আহ্বান

ফিলিস্তিনী জনগণের সাথে সংহতি প্রকাশের আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষ্যে জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন সংঘাত অবসানে ইজরায়েল এবং ফিলিস্তিনী প্রশাসনের জন্য দুটি আলাদা রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার বিষয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সমর্থনের আহ্বান জানিয়েছেন।

১৯৪৭ সালের ২৯শে নভেম্বর ফিলিস্তিনের বিভাজন বিষয়ে সাধারণ পরিষদে প্রস্তাব পাশ করার দিনটিকে স্মরণ করে প্রতিবছর এই দিনটিতে সংহতি দিবস পালন করা হয়।

দিবসটি উপলক্ষ্যে মি বান দুই রাষ্ট্রভিত্তিক সমাধানকে ক্ষতিগ্রস্ত করে এমন কোন পদক্ষেপ গ্রহণ থেকে বিরত থাকার জন্য উভযপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান।

দিবসটি উপলক্ষ্যে এক বার্তায় তিনি সহিংসতা এবং উস্কানি বৃদ্ধির কারনে বাস্তবে পরিস্থিতি আরও বিপজ্জনক হয়ে ওঠার আশঙ্কা প্রকাশ করেন।

আলোচনা নবায়নের অংশ হিসাবে ইজরায়েল ফিলিস্তিনী বন্দীদের মুক্তি দেওয়ার বিষয়টিকে তিনি স্বাগত জানালেও  অধিকৃত ফিলিস্তিনী অঞ্চলে তার বসতি নির্মাণ কার্যক্রম অব্যাহত থাকার বিষয়টিকে তিনি অব্যাগত উদ্বেগের বিষয় হিসাবে উল্লেখ করেন।

এদিকে, দিবসটি উপলক্ষ্যে অনুষ্ঠিত হয় একটি সঙ্গীতানুষ্ঠান যেখানে শিল্পী নাই বারগুটির দল এবং ২০১৩'র অ্যারাব আইডল মোহাম্মদ আসাফ সঙ্গীত পরিবেশন করেন।

সাইবার গোপনীয়তার বিষয়ে জাতিসংঘে প্রস্তাব গৃহীত

অনলাইনে বেআইনী নজরদারির বিরুদ্ধে গোপনীয়তার অধিকার সুরক্ষার লক্ষ্যে একটি প্রস্তাব জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের মানবাধিকার কমিটিতে সর্বসম্মতভাবে অনুমোদিত হয়েছে।

জার্মানি এবং ব্রাজিল এই প্রস্তাব উত্থাপন করে। যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা এই দৃই রাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশের সরকার ও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের ওপর নজরদারি করেছে বলে সংবাদপত্রে খবর প্রকাশের পর মঙ্গলবার এই প্রস্তাবটি গৃহীত হলো।

জার্মানির রাষ্ট্রদূত বলেন যে এই প্রস্তাবে বলা হয়েছে যে ইন্টারনেটের বাইরে মানুষের যে অধিকার থাকে অনলাইনেও সেসব অধিকারের সুরক্ষা দিতে হবে।

ব্রাজিলের পক্ষে এবিষয়ে মন্তব্য করেন রাষ্ট্রদূত অ্যান্টোনিও প্যাট্রিওটা বলেন যে এই প্রস্তাবের মূলে রয়েছে সাধারণ পরিষদ অধিবেশনে প্রেসিডেন্ট ডিমা রুসেফ ব্রাজিলের যে উদ্বেগের কথা জানিয়েছিলেন সেই সম্ভাব্য মানবাধিকার লংঘনের বিষয়টি। মতপ্রকাশের স্বাধীনতা এবং গণতন্ত্রের মৌলিক উপাদান – মানুষের গোপনীয়তার অধিকার – দেশের অভ্যন্তরে এবং সীমানার বাইরে গণহারে নজরদারির কারণে লংঘিত হওয়ার বিষয়টি এই প্রস্তাবের মূল ভিত্তি।

যুক্তরাষ্ট্রও এই প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দেয়।

থাইল্যান্ডে রাজনৈতিক উত্তেজনা নিরসনে সংলাপের আহ্বান

জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন থাইল্যান্ডে সব পক্ষকে সর্ব্বোচ্চ সংযম দেখানো ও  সহিংসতা পরিহার এবং মানবাধিকার ও আইনের শাসনের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শনের আহ্বান জানিয়েছেন।

বুধবার এক বিবৃতিতে মি বান এর মুখপাত্র জানান যে ব্যাংককে রাজনৈতিক উত্তেজনা বৃদ্ধি পাওয়ায় তিনি উদ্বিগ্ন এবং গত কয়েকসপ্তাহের ঘটনাবলীর ওপর তিনি ঘনিষ্ঠভাবে নজর রাখছেন।

মহাসচিব সব পক্ষকে শান্তির্পূণ উপায়ে তাদের মতপার্থক্য দূর করার লক্ষ্যে সংলাপ শুরুর জন্য উৎসাহিত করেছেন।

সবার জন্য টেকসই জ্বালানি উদ্যোগ গতি লাভ করায় বানের সন্তোষ

সরকার, আন্তর্জাতিক সংস্থা, নাগরিক সমাজ এবং বেসরকারী  খাতকে সম্পৃক্ত করে সবার জন্য টেকসই জ্বালানি সরবরাহের উদ্যোগ জোরদার করার লক্ষ্যে জাতিসংঘ এবং বিশ্বব্যাংক বুধবার এক যৌথ পরিকল্পনার কথা ঘোষণা করেছে।

২০৩০ সাল নাগাদ তিনটি লক্ষ্য অর্জনের উদ্দেশ্যে দু'বছর আগে এই উদ্যোগ সূচিত হয়।এগুলো হচ্ছে, আধুনিক জ্বালানিকে সর্বজনীন করা, জ্বালানি ব্যবহারে দক্ষতা দ্বিগুণ করা এবং নবায়নযোগ্য জ্বালানির অংশ দ্বিগুণ করা।

মানবপাচার মোকাবেলায় অভিবাসনের বৈধপথ সম্প্রসারণের আহ্বান

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা, আই ও এম উন্নত জীবনের আশায় জীবনহানির ঝুঁকি সত্ত্বেও  সাগর এবং মরুভূমি পাড়ি দেওয়ার মতো অভিবাসন চেষ্টা মোকাবেলায় সমন্বিত বৈশ্বিক উদ্যোগ গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছে।

আই ও এম বলছে যে বাহামাসের উপকূলে চলতি সপ্তাহে ত্রিশজন হেইশিয়ান অভিবাসীর মৃত্যু আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে আবারও স্মরণ করিয়ে দিয়েছে যে অভিবাসীদের সুরক্ষা ও মানবিক মর্য্যাদা সমুন্নত রাখার জন্য একটি সমন্বিত কৌশল উদ্ভাবন করা প্রয়োজন।

আইওএম এর মহাপরিচালক উইলিয়াম সুইং বিদেশে উন্নত ভবিষ্যতের সন্ধানে যাঁরা অভিবাসনে ইচ্ছুক তাঁদের জন্য বৈধ অভিবাসনের পথ আরও প্রশস্ত করার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন যে এরকম ব্যবস্থা করা হলে কিছু কিছু অভিবাসনপ্রত্যাশীর মানবপাচারকারীদের হাতে নিজেদেরকে তুলে দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নেওয়া আর প্রয়োজন হবে না।

Loading the player ...

সংযোগ বজায় রাখুন