১৭:২৩:৪৫

দূর্যোগ মোকাবেলায় সহিষ্ণু নগর পরিকল্পনার আহ্বান

শুনুন /

সাতই অক্টোবর বিশ্ব বসতি দিবস উপলক্ষে নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিত উচ্চ-পর্য্যায়ের এক বৈঠকে মহাসচিব বান কি মুন দূর্যোগ ঘটলে জীবন ও সম্পদ রক্ষা এবং বিভিন্ন সেবাব্যবস্থা চালু রাখার জন্য আরো সহিষ্ণু নগর পরিকল্পনার আহ্বান জানিয়েছেন।

মি বান বলেন যে এই সহস্রাব্দ শুরুর পর থেকে প্রাকৃতিক দূর্যোগে প্রায় এগারো লাখ মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন দুশো সত্তুর কোটিরও বেশি মানুষ। অর্থনৈতিক ক্ষতির পরিমাণ আনুমানিক তেরো লক্ষ কোটি ডলার।

মি বান বলেন যে দুর্যোগ যাদেরকে সবার আগে এবং সবচেয়ে বেশি আঘাত করে সেই দরিদ্র জনগোষ্ঠীর ক্ষতি কাটিয়ে ওঠার ক্ষমতা হোল সবচেয়ে কম।

এদিকে, সাধারণ পরিষদের সভাপতি ডঃ জন অ্যাশ  বলেন যে সব পর্য্যায়েই দূর্যোগ পরিকল্পনা হাতে নেওয়া উচিৎ : ব্যাক্তি পর্য্যায়ে পরিবারকে সরিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা, স্থানীয় সরকারে টেকসই এবং সহিষ্ণু শহর গড়ে তোলা, জাতীয় পর্য্যায়ে দূর্যোগ হ্রাস এবং আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের উন্নয়ন কমর্সূচিতে দূর্যোগ মোকাবেলার পরিকল্পনা।

মানবপাচার বন্ধে পদক্ষেপ জোরদার করার আহ্বান

জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার মানবপাচার বন্ধে ইরিত্রিয়া এবং সোমালিয়ার কতৃপক্ষের প্রতি জোরালো পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার ইটালীয় দ্বীপ লাম্পাদুসায় নৌযান দুর্ঘটনার পটভূমিতে তিনি এই আহ্বান জানান। ওই ঘটনায় যে শতাধিক ব্যাক্তির প্রাণহানি ঘটে তাঁদের অধিকাংশই ছিলেন ইরিত্রিয়ার নাগরিক।

জেনেভায় জাতিসংঘ মানবাধিকার দপ্তরের মুখপাত্র রুর্পাট কলভিল বলেন যে ভূমধ্যসাগর এবং অন্যান্য অঞ্চলে অভিবাসীদের পাচারের হার বাড়তে থাকায় তাঁরা উদ্বিগ্ন।

জাতিসংঘ মানবাধিকার দপ্তর ইটালী এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি এধরণের মর্মান্তিক দূঘর্টনার পুনরাবৃত্তি রোধে ব্যবস্থা হোরদার করার আহ্বান জানান।

বিশ্বে এখন পঞ্চাশ লাখ শিক্ষক প্রয়োজন

জাতিসংঘের চারটি সংস্থার এক যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়েছে যে ২০১৫ সালের মধ্যে সহস্রাব্দের উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার সবার জন্য প্রাথমিক শিক্ষার লক্ষ্য অর্জনের জন্য বিশ্বে পঞ্চাশ লাখ শিক্ষক নিয়োগ করা প্রয়োজন।

পাঁচই অক্টোবর বিশ্ব শিক্ষক দিবস উপলক্ষ্যে এক বিবৃতিতে তাঁরা বলেছেন যে বিষয়টি শুধু সংখ্যার ওপরই নির্ভরশীল নয়, কেননা অধিক সংখ্যায় শিক্ষক মানে উন্নত মানের শিক্ষা এবং সেজন্যে প্রয়োজন প্রশিক্ষণ এবং সহায়তা।

ইউনেস্কো, ইউ এন ডি পি, ইউনিসেফ এবং আইএলও'র যৌথ বিবৃতির বিষয়ে আইএলও প্রধান গাই রাইডার বলেন যে আমাদের ভবিষ্যতের চাবি অনেকভাবেই আজকের শিক্ষকদের হাতে এবং শিক্ষকদের ভবিষ্যতের চাবি আমাদের হাতে।

মি রাইডার বলেন যে সরকারি ব্যয় কমানোর ক্ষেত্রে শিক্ষার মৌলিক অধিকার এবং শিক্ষকরা যেন সহজ শিকারে পরিণত না হন সেটা নিশ্চিত করা আমাদের দায়িত্ব।

মি রাইডার বলেন যে নারী এবং পুরুষদেরকে এই মহান পেশাগ্রহণে উদ্বুদ্ধ করার জন্য সরকার, ব্যবসায়ী, শ্রমিক সংগঠন – সবাইকে উদ্যোগী হতে হবে।

বিশ্বে ক্ষুধা কমলেও কোটি কোটি মানুষ পুষ্টিহীনতার শিকার

জাতিসংঘের তিনটি সংস্থার এক রিপোর্টে বলা হয়েছে যে বিশ্বব্যাপী  ক্ষুর্ধাত মানুষের সংখ্যা কমা সত্ত্বেও এখনও কোটি কোটি  মানুষ পুষ্টিহীনতায় ভূগছেন।

রিপোর্টে বলা হয় যে গত দুই বছরে বিশ্বে চুরাশি কোটিরও বেশি লোক – অর্থাৎ প্রতি আটজনে একজন দীর্ঘকালীন ক্ষুধার শিকার – যার অর্থ হচ্ছে তাঁরা সক্রিয় এবং স্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের জন্য যথেষ্ট পরিমাণে খাদ্য পাচ্ছেন না।

২০১০ সালে এই সংখ্যা অবশ্য ছিলো সাতাশি কোটি এবং ২০১২ তে সেই সংখ্যা কমেছে।

খাদ্যশস্যের বৈশ্বিক মূল্যসূচক টানা পঞ্চম মাসের মতো কমেছে: এফ এ ও

জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা এফ এ ও'র শস্য সম্ভাবনা এবং খাদ্য পরিস্থিতি বিষয়ক সর্বসাম্প্রতিক ত্রৈমাসিক প্রকাশনায় বলা হয়েছে যে বিশ্বে খাদ্যশস্য উৎপাদনের পরিমাণ নিম্নমাত্রায় হবে বলে পূর্বাভাষ সত্ত্বেও ২০১৩/১৪ বিপণন মৌশুমে বৈশ্বিক সরবরাহ পরিস্থিতি অনুকুলে থাকবে।

এফ এ ও বলছে যে শস্য উৎপাদনের পরিমাণ কম হবে বলে পুর্বাভাষ নিম্নমুখী হোলেও এই পরিমাণ ২০১২ সালের চেয়ে আট শতাংশ বেশি হবে।

এদিকে,  এফ এ ও'র খাদ্যশস্যের বৈশ্বিক মূল্যসূচক পরপর পঞ্চম মাসের মতো সেপ্টেম্বরে আরো একদফা কমেছে।

বিশ্ববাজারে খাদ্যশস্যের দামে বড়ধরণের পতনের কারণেই সূচকে এই নিম্নগামিতা।

পঞ্চান্নটি খাদপণ্যের আন্তর্জাতিক মূল্যের গড় হিসাব করেই এই সূচক নির্ধারণ করা হয়ে থাকে। অগাষ্টের তুলনায় সেপ্টেম্বরে এই সূচক কমেছে ২.৩ পয়েন্ট ।

Loading the player ...

সংযোগ বজায় রাখুন