১৬:১৬:০৩

দূর্যোগ প্রস্তুতিতে শারীরিক প্রতিবন্ধীদের প্রয়োজন উপেক্ষিত

শুনুন /

জাতিসংঘের এক জরিপে দেখা যাচ্ছে যে শারীরিক প্রতিবন্ধীদের মাত্র দশ শতাংশ বিশ্বাস করেন যে দূর্যোগ মোকাবেলার পরিকল্পনায় তাঁদের চাহিদার বিষয়টি বিবেচনা করা হয়।

জেনেভায় বৃহস্পতিবার প্রকাশিত এই জরিপটি এবছরের জুলাই মাসে পরিচালনা করা হয়। বিশ্বে মোট জনগোষ্ঠীর প্রায় পনেরো শতাংশ বা একশো কোটি লোক শারীরিক প্রতিবন্ধী বলে অনুমান করা হয়।

জাতিসংঘের দূর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস দপ্তরের পরিচালক, এলিজাবেথ লংওর্য়াথ জরিপে অংশগ্রহণকারী ১২৬টি দেশের প্রায় পাঁচ হাজারের বেশি জবাবদাতার কাছ থেকে যে বার্তা পাওয়া গেছে তা কেলেংকারির সাথে তুলনীয় বলে মন্তব্য করেছেন।

এলিজাবেথ লংওর্য়াথ বলেন যে মাত্র দশ শতাংশ জবাবদাতা বিশ্বাস করেন যে তাঁদের পৌরসভা বা স্থানীয় কতৃপক্ষ জরুরি পরিস্থিতি বা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার পরিকল্পনায় তাঁদের চলাচল বা সক্রিয় থাকার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা রাখার বিষয়গুলো বিবেচনায় নিয়েছে। তাঁদের মধ্যে মাত্র কুড়ি শতাংশ তাৎক্ষণিকভাবে স্থান ছেড়ে যেতে সক্ষম হবেন, আর কিছুটা বেশি সময় পেলে এই হার বেড়ে দাঁড়ায় আটত্রিশ শতাংশে।

এলিজাবেথ লংওর্য়াথ বলেন যে অর্ধেকেরও বেশি – প্রায় আটান্ন শতাংশ অংশগ্রহণকারী বলেছেন যে জরুরিভিত্তিতে স্থানত্যাগে তাঁদের সমস্যায় পড়তে হবে এবং ছয় শতাংশ বলেছেন যে সেটা তাঁদের পক্ষে সম্ভব হবে না।

দুর্যোগসহনীয় সমাজ এবং দেশ গড়ে তোলার গুরুত্ব তুলে ধরার লক্ষ্যে তেরোই অক্টোবর আন্তর্জাতিক দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস দিবস পালনের প্রাক্কালে এই জরিপের ফলাফল প্রকাশ করা হয়।
এবছরে এই দিবসটির মূল ভাবনায় শারীরিক প্রতিবন্ধীদের দিকে বিশেষভাবে নজর দেওয়া হয়েছে – যাঁরা সমাজে সবচেয়ে বিচ্ছিন্ন অবস্থায় থাকেন এবং দুর্যোগে যাঁদের ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি।

Loading the player ...

সংযোগ বজায় রাখুন